মেসিকে আর্জেন্টিনায় খেলতে দিতে চায় না পিএসজি

পিএসজিতে যখন যোগ দিয়েছেন লিওনেল মেসি, তখন দুই পক্ষের মধ্যে চুক্তিতে আর্জেন্টিনার বিষয়টি স্পষ্ট করেই বলে দেওয়া ছিল। পিএসজির হয়ে নাম লেখানোর পর এখনো ঠিক মেসিসুলভ ঝলক দেখাতে পারেননি লিওনেল মেসি। ফর্মহীনতা আর চোটের কারণে এখনো একরকম পর্দার আড়ালেই আছেন। তবে এবার চুক্তির সেই ধারাকে পিএসজি কর্তৃপক্ষ বললো ‘অর্থহীন’।

কারণটা হচ্ছে মেসির চোট। এ কারণে পিএসজির শেষ দুই ম্যাচে খেলতে পারেননি আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। সেই মেসিই যখন আবার আর্জেন্টিনার হয়ে খেলতে ১৩ ঘণ্টার সফর শেষে পাড়ি জমাতে চান লাতিন আমেরিকায়, তখন এই কথাই বলেছেন পিএসজির ক্রীড়া ব্যবস্থাপক লিওনার্দো।

মেসির আর্জেন্টিনা আগামী সপ্তাহে উরুগুয়ে আর ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে। কিন্তু চোটের কারণে আর্জেন্টাইন অধিনায়ককে এ মাসে আর্জেন্টিনায় যেতে দিতে চায় না পিএসজি কর্তৃপক্ষ। হাঁটুর চোটের কারণে সবশেষ দুই ম্যাচে মেসি খেলতে পারেননি। এ বিষয়টা তুলে ধরে সাবেক ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার ও বর্তমান পিএসজি কর্তা লিওনার্দো বলেন, ‘আমরা এমন একজন খেলোয়াড়কে যেতে দিতে পারি না, যার শারীরিক অবস্থা ভালো নেই, কিংবা যে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় আছে।’

ল্য পারিসিয়ানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মেসির ওপর নিজের অসন্তুষ্টিটা সাফই জানিয়ে দিয়েছেন লিওনার্দো। জানালেন, এমন সব বিষয়ে ফিফার হস্তক্ষেপও থাকা জরুরি। বললেন, ‘চোটের কারণে ক্লাবের হয়ে খেলতে না পারলেও জাতীয় দলের জন্য খেলতে চলে যাওয়া, এর কোনো মানে নেই। আর আমার মনে হয়, এমন সব পরিস্থিতি এড়াতে ফিফার মাধ্যমে একটা প্রকৃত চুক্তি করা দরকার।’

লিওনার্দোর এমন মন্তব্যের পরেও মেসি অবশ্য আজই পাড়ি জমানোর কথা আর্জেন্টিনায়। পিএসজির অসন্তুষ্টি আরও বাড়িয়ে দিতে পারে মেসির সঙ্গে আরেক মিডফিল্ডার লিয়ান্দ্রো পারেদেসের আর্জেন্টিনা যাত্রা। যিনি গেল অক্টোবর থেকেই উরুর চোটের কারণে আছেন মাঠের বাইরে। তিনিও মেসির সঙ্গে যাচ্ছেন আর্জেন্টিনায়।

তবে পিএসজি কোচ মরিসিও পচেত্তিনো অবশ্য এ বিষয়ে লিওনার্দোর মতো চাঁচাছোলা মন্তব্য করলেন না। বরং তার স্বদেশি মেসির প্রতি কিছুটা নমনীয়ই ছিল তার কণ্ঠ। গত শনিবার রাতে বোর্দোর মুখোমুখি হওয়ার আগে তিনি বলেন, ‘কাল সে দলের সঙ্গে খেলতে পারবে না। সে তার জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য তৈরি কিনা, তা আমাদের দেখতে হবে।’