এটা কি ধরনের বরন ? দেশ জুড়ে সমালোচনা।

0
256

যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মনিরুল ইসলাম মনিরকে স্কুলছাত্রীদের বরণ করার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) যশোরের চৌগাছা উপজেলার এবিসিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ফুল হাতে নিয়ে ছাত্রীরা এমপি মনিরুলসহ অন্যান্য অতিথিদের বরণ করে।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এমপি মনির ও আওয়ামী লীগের নেতারা রুমের মধ্যে বসে আছেন। পাশ থেকে একজন শিক্ষক ছাত্রীদের শিখিয়ে দিচ্ছেন। একদল ছাত্রী ফুলের মালা হাতে অতিথিদের সামনে দাঁড়ায়। তারপর তারা ‘ধনধান্য পুষ্পে ভরা, আমাদের এই বসুন্ধরা…’ গানের সঙ্গে তাল মিলিয়ে ফুল হাতে মাথানত করে উঠছে আর, বসছে।

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চৌগাছার বকসিপুর গ্রামের বাসিন্দা ও আইডিইবি’র যশোর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার নুরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ধন ধান্য পুষ্পে ভরা আমাদের এই বসুন্ধরা….গানের সঙ্গে ফুলের মালা হাতে মেয়েরা এমপি মহোদয়সহ অতিথিদের বরণ করে নিয়েছে। অতিথির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতেই এভাবে বরণ করা হয়েছে। মূলত গানটি কন্টিনিউ করার জন্য মেয়েরা ফুল হাতে, এভাবে ওঠাবসা করেছে। এই ঘটনাটিকে ভিন্নভাবে ব্যাখা করা ঠিক হবে না।

অতিথির সামনে দাঁড় করিয়ে ছাত্রীদের এভাবে উঠবস করাকে ভালোভাবে নেয়নি এলাকাবাসী। নাজমুল হোসেন নামে এক ব্যক্তির ফেসবুক পেজে ভিডিওটি আপলোড করা হয়েছে। তিন ঘণ্টায় ভিডিওটি ৯৭ হাজার বার ভিউ হয়েছে।

কমেন্টস রিপ্লাইয়ে নাজমুল হোসেন জানান, এবিসিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানের ভিডিও এটি। প্রথমে এমপি সাহেব নিজেই আপলোড করেন। পরে তিনি ডিলেট করে দিয়েছেন বলেও দাবি করেছেন নাজমুল হোসেন।নূরুল ইসলাম বলেন, ওই স্কুলের জমি দান করেছিল আমার মামা। দীর্ঘদিন ভবন ছিল না। নতুন ভবন পেয়ে এলাকার সবাই খুশি। তাই এমপিসহ অতিথিদের বরণ করে নিয়েছে।

এদিকে সন্ধ্যায় এমপি মনিরুল ইসলাম মনিরের মেইল থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার যশোরের চৌগাছা উপজেলা হাকিমপুর ইউনিয়নে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন এমপি মনিরুল ইসলাম মনির।উদ্বোধন করা কাজগুলোর মধ্যে রয়েছে- এবিসিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৬৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ৪তলা ভীত বিশিষ্ট ১ তলা ভবন, ৫৯ লাখ টাকা ব্যয়ে দেবীপুর-বকশীবাজার ১১শ মিটার পাকাসড়ক নির্মাণ, ইউনিয়নের পাতিবিলাসহ বিভিন্ন বাজারে স্থাপিত সোলার স্ট্রিট লাইট উদ্বোধন উল্লেখযোগ্য।

 

LEAVE A REPLY